বিরাটরাজের পত্নী সুদেষ্ণার ভ্রাতা ও বিরাটরাজের প্রধান সেনাপতি। পাণ্ডবরা যখন বিরাটরাজের প্রাসাদে অজ্ঞাতবাস করছিলেন, তখন এই কীচক সৈরিন্ধ্রির-র (দ্রৌপদীর ছদ্মনাম) রূপে আকৃষ্ট হয়ে তাঁকে উত্তক্ত করতে থাকেন। সুদেষ্ণাকে সে কথা জানিয়ে কোনও ফল হয় না। দ্রৌপদী তখন বল্লালের (ভীমের ছদ্মনাম) সঙ্গে পরমার্শ করে কীচককে বলেন, গভীর রাতে গোপনে নাচের ঘরে আসতে - সেখানে তিনি অপেক্ষা করবেন। একাকী কীচক সেখানে আসতেই ভীমের হাতে তিনি নিহত হন।