একজন ঋষি। হৈহয় বংশের এক কুমার মৃগয়া করতে এসে মৃগ ভেবে এক ঋষিকুমারকে বধ করেন। হৈহয়রাজগণ নিহত সেই ব্রাহ্মণকে দেখে ব্রহ্মহত্যার ভয়ে ভীত হয়ে তিনি কার পুত্র অনুসন্ধান করতে করতে অরিষ্টনেমার অশ্রমে আসেন। অরিষ্টনেমা তখন তাঁর পুত্রকে ওঁদের দেখিয়ে জিজ্ঞাসা করেন যে, এই সেই নিহত ব্রাহ্মণ কিনা। ওঁদের বিস্ময় দেখে অরিষ্টনেমা বলেন যে, ওঁরা স্বধর্মের অনুষ্ঠান করেন। অতিথি ও পরিচারকদের ভোজনের পর অবশিষ্ট যা থাকে - তা আহার করেন। ওঁরা ক্ষমাশীল, দানপরায়ণ, শান্ত ও সংযতেন্দ্রিয়। এইসব কারণে ওঁদের মৃত্যুভয় নেই।