এক রাজা যাঁর উপাধ্যায় ছিলেন আয়োধ ধৌম্যের শিষ্য বেদ। বেদের শিষ্য উতঙ্ক গুরুদক্ষিণা দিতে চাইলে বেদ-ভার্যা উতঙ্ককে বলেছিলেন, পৌষ্যের ক্ষত্রিয়া পত্নীর দুটি কুণ্ডল ওঁর জন্য নিয়ে আসতে। রাজমহিষী কুণ্ডল দান করার পর পৌষ্য উতঙ্ককে আহার করে যেতে অনুরোধ করলেন। কিন্তু আহার্যের অন্ন ঠাণ্ডা ও তাতে একটি কেশ দেখতে পেয়ে, উতঙ্ক পৌষ্যকে অভিশাপ দিলেন যে, তিনি অন্ধ হয়ে যাবেন। পৌষ্য তখন ক্ষুব্ধ হয়ে বললেন যে, উতঙ্ক নির্দোষ অন্নকে অশুচি বলে অন্যায়ভাবে অভিশাপ দিয়েছেন, তার ফলে উতঙ্ক নিঃসন্তান হবেন। পরে অবশ্য অন্ন পরীক্ষা করে পৌষ্য উতঙ্কের কাছে ক্ষমা চাইলেন। উতঙ্ক বললেন যে, অন্ধ হবার পর পৌষ্য আবার তাঁর দৃষ্টিশক্তি ফিরে পাবেন। কিন্তু পৌষ্যের প্রদত্ত শাপ ফলবে না - কারণ তিনি অন্নের দোষ স্বীকার করেছেন।