কান্যকুব্জের রাজা গাধির কন্যা ও ভৃগুপুত্র ঋচীকের পত্নী। এঁর পুত্র হলেন জমদগ্নি। মহর্ষি ভৃগু পুত্রবধুকে বর দিতে চাইলে সত্যবতী নিজের ও মাতার জন্য পুত্র চান। ভৃগু তখন সত্যবতীকে দুই চরু দিয়ে বললেন যে, ঋতুস্নানের পরে সত্যবতীর মাতা অশ্বত্থ বৃক্ষকে আলিঙ্গন করে একটি চরু পান করবেন আর সত্যবতী উডুম্বর বৃক্ষকে আলিঙ্গন করে অন্য চরু পান করবেন। তাহলেই অভিষ্ট ফল হবে। কিন্তু সত্যবতী ও তাঁর মাতা নির্দেশের বিপরীত পালন করায় ভৃগু দিব্যজ্ঞানে সব জানতে পেরে সত্যবতীকে বললেন যে, এর ফলে সত্যবতীর পুত্র ব্রাহ্মণ হয়েও বৃত্তিতে ক্ষত্রিয় হবে আর সত্যবতীর মাতার ক্ষত্রিয় পুত্র আচারে ব্রাহ্মণ হবে। সত্যবতী তখন প্রার্থনা করলেন যে, পুত্রের বদলে ওঁর পৌত্র সেইরূপ হোক। ভৃগু তাতে সন্মত হলেন। সত্যবতীর সেই পৌত্র হলেন পরশুরাম আর গাধি-মহিষীর (সত্যবতীর মাতা) পুত্র হলেন বিশ্বামিত্র। মহাভারতের অন্য এক স্থানে আছে যে, ভৃগু নয় - ঋচীক সত্যবতীকে চরু দিয়েছিলেন।